নানুবাড়ি চট্টগ্রামে

লিখেছেন - রাহনুমা কুমকুম | লেখাটি 449 বার দেখা হয়েছে

নানুবাড়ি চট্টগ্রামে।দুইটা ছোট বড় ঘূর্নিঝড়ে আমি সেখানেই
ছিলাম।অনেক ছোট তখন।আমার শুধু মনে আছে ঝড়ের আগে প্রচন্ড
বাতাসের ঝাপটা এসে আমার নানার সাধের
রাধাচূড়াটাকে নিমেষে নেড়া করে দিল!উঠোনজুড়ে হলুদ ফুলের
কার্পেট,আমি মুগ্ধ দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছি!বাতাস
ঠেলে সরিয়ে দিচ্ছে আমার ছোট্ট শরীর..আমার মাথায় বৃষ্টির মত ফুল..টিনের চালে সশব্দে আছড়ে পড়ল গাছের
ডালপালা..নানাভাই
টেনে আমাকে ঘরে নিয়ে গিয়ে দরজা লাগিয়ে দিলেন।আর
ম্মুকে দিলেন বকা "ঝড় শুরু হয়ে গেছে আর কুমুটা বাইরে,তুই
দেখলি না মা"..ঝুপ করে কারেন্ট গেল,অন্ধকার..ছোট্ট
বাড়ীটায় টিনের চালের ঝমঝমি,যেন প্রবল বিদ্রোহে ছিটকে পড়ার চেষ্টা..নানার চিন্তিত মুখ,মার
তড়িঘড়ি করে জরুরী জিনিস ব্যাগে ভরা..ওদের
দেখতে দেখতে আর ঝড়ের গর্জনে অভ্যস্ত হয়ে গিয়ে আমার
ঘুমিয়ে পড়া!না সেদিন একতালা বাড়িটায় একটুর জন্য
পানি ওঠেনি।ঘুমন্ত
আমাকে কোলে নিয়ে নানাভাইকে ছুটতে হয়নি নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে..ভাগ্য সহায় ছিল আমাদের..
প্রার্থনা করি আজও তাই হোক..

Share