কিছু সকাল ছেয়ে থাকে মিহি রৌদ্দুরে

লিখেছেন - মুস্তাকী নাঈমা তিন্নি | লেখাটি 540 বার দেখা হয়েছে

কিছু সকাল ছেয়ে থাকে মিহি রৌদ্দুরে। নীল আকাশে টুকরো রোদের ছড়াছড়িতে দিনটা শুরু হতে থাকে। বেলা বাড়তে বাড়তে পূবালী রোদ যেন আরো তেতে উঠে। তখন আর মিহি রৌদ্দুর নিয়ে খেলা করা হয়না।

শুরু হয় ব্যস্ততা,যান্ত্রিক জীবনের শহুরে পথচলা। গাড়ির হর্ণ আর তীব্র যানযট উপেক্ষা করে ভিড় করা চলন্ত বাসে ঠিকই ঠেলেঠুলে উঠবে অফিসগামী মানুষগুলো। তাদের যে ঠিক সময়ে অফিসে পৌঁছুতেই হবে।

কোনমতে নাকে মুখে খাবার গুঁজে কিছু ছেলেমেয়ে সকাল সকাল দাঁড়িয়ে থাকে বাসস্টপ্জে। বার বার ঘড়ির দিকে তাকিয়ে দেখে ক্লাস শুরু হতে আর কতক্ষণ আছে। ক্লাস যে ধরতেই হবে।

ছোট ছোট বাচ্চাগুলো স্কুল ড্রেস পড়ে গলায় ফ্লাক্স আর আইডি কার্ড ঝুলিয়ে হাঁটতে থাকে অলস ভঙ্গিতে। পেছন পেছন হয়তো বাচ্চাটির বাবা অথবা মা পাহাড় সমান ওজন স্কুল ব্যাগটি নিয়ে হাঁটতে থাকে স্কুলের পথে। বাচ্চাটা কে স্কুলে দিয়ে তাদেরও যে নিজ নিজ কাজে যেতে হবে।

আসলে শহুরে জীবনটাই এমনই যান্ত্রিক, অসহ্যরকম একঘেয়েমি। তবু প্রতিদিন একই দৃশ্যগুলোই ঘটে যাচ্ছে চোখের সামনে।

তেতে উঠা রোদ তখন আর এই যন্ত্রমানব গুলোকে মিহি রৌদ্দুরের পরশ বুলিয়ে যায় না।

Share