দূর্জয় বৈদ্য

আমি খুবই সাধারণ একজন মানুষ । সাধারণ মানুষের মতোই আমার রাগ হয় , ক্ষোভ হয়--- কিন্তু প্রচলিত ধারার বাইরে দ্রোহী হতে কুণ্ঠা জাগে । সাধারণ মানুষের মতোই আমি সুখ-দুঃখের বিলাসিতা করে বেড়ায় । তবে কষ্ট হোক আর আনন্দই পাই না কেন -- চেষ্টা করি সবসময় হাসতে ।

স্পস্ট
কথা বলাটা আমার চোখে পড়ার মতো একটা বদ অভ্যাস । অনেক ঝামেলায় পড়েছি এটার কারণে কিন্তু ছাড়তে পারি নাই , ইচ্ছাটাও আর নাই ।

একসময় অনেক বড় বড় স্বপ্ন দেখতাম । কিন্তু এখন আর দেখি না । ইছেটার দাফন হয়েছে কিন্তু দেখার অভ্যাসটা আজো রয়ে গিয়েছে ।

চোখে ভারী পাওয়ারের চশমা পরা , মোটাসোটা , কালোর চেয়ে সামান্য ফর্সা বর্ণের এক আপাতদৃষ্টিতে দিকভ্রান্ত যুবক আমি।প্রকৌশল শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার একটা প্রায় ব্যর্থ অপচেষ্টাকে ঘিরে এখন দিন কাটে । আর কখনো কাগজের সেলে বন্দি করি আমার ভাবনা-চিন্তাগুলোকে । দিনশেষে ওখানেই যেন নিজের পরম আশ্রয় খুঁজে পাই ।